রাজশাহীতে আবারও বেড়েছে আলুর দাম

প্রকাশিতঃ ৫:৩৮ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৪, ২০২০

সুজন রাজশাহী প্রতিনিধি:

কিছু দিন ধরেই সারাদেশে আলোচনায় আলুর দাম। দেশের অন্য জায়গার মত রাজশাহীতেও হঠাৎ করেই হু হু করে বেড়ে যায় আলুর দাম। মাঝখানে দাম কিছুটা কমলেও বৃহস্পতিবার থেকে রাজশাহীতে আবারও আলুর দাম বেড়েছে।শুক্রবার রাজশাহী নগরীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, মাত্র একদিনের ব্যবধানেই আবারও বেড়েছে আলুর দাম। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ৩৫ টাকা আলুর দাম নির্ধারণ করা হলেও কোথাও নেই এই দাম। বিক্রেতারা বারবার বলছেন, সরকারি নিদের্শনা থাকলেও তারা আলু বেশি দামে পাইকারি বাজার থেকে কিনে আনছেন। ফলে ৩৫ টাকায় বিক্রি করা সম্ভব হচ্ছে না।গত এক সপ্তাহ থেকেই আলু কেজি প্রতি ৪২ থেকে ৪৫ টাকা বিক্রি করছিলেন বিক্রেতারা।এমনকি বৃহস্পতিবারও ৪২ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছে। তবে একদিনের ব্যবধানেই কেজি প্রতি ৩ টাকা করে দাম বেড়েছে। শুক্রবার রাজশাহীতে আলু ৪৮ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছে।
আলুর পাশাপাশি আবারও বেড়েছে শসার দাম। শসা গত এক সপ্তাহ ধরে ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি থাকলেও শুক্রবার আর এই দামে কিনতে পাওয়া যায়নি। শসার দাম বেড়ে কেজিপ্রতি ৭০ টাকা হয়েছে। তবে আলু এবং শসা ছাড়া অন্যান্য সবজির দাম গত সপ্তাহের তুলনায় কিছুটা কমেছে। ফুলকপি ৮০ টাকা কেজি থাকলেও একন ৭০ টাকা কেজিতে পাওয়া যাচ্ছে। কেজিপ্রতি ১০ টাকা করে দাম কমেছে বেগুনেরও। বেগুন এখন ৬০ টাকা কেজিতে পাওয়া যাচ্ছে। মুলা, সিম এবং পটলেরও কেজিপ্রতি ১০ টাকা করে দাম কমেছে। মুলা এখন ৫০ টাকা, সিম ৪০ টাকা এবং পটল ৫০ টাকা কেজিতে কিনতে পারছেন ক্রেতারা।সবজির মত কিছুটা দাম কমেছে আদা, রসুন ও পেঁয়াজের। আদার দাম কেজি প্রতি ১২০ টাকা থাকলেও সেই দাম কমে ১০০ টাকা হয়েছে। পেঁয়াজের দাম কমেছে কেজি প্রতি ৫ টাকা করে। পেঁয়াজ এখন ৬৫ টাকা কেজিতে পাওয়া যাচ্ছে। রসুনের দাম কেজি প্রতি ২০ টাকা করে কমে এখন ১৪০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। তবে এই সপ্তাহে দাম বেড়েছে মাংসের। গরু, খাসি এবং ব্রয়লার মাংসের দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি ২০ টাকা করে। গরুর মাংস গত সপ্তাহে ৫২০ টাকা কেজিতে বিক্রি হলেও এখন দাম বেড়ে হয়েছে ৫৪০ টাকা। তেমনি খাসির মাংস এখন ৭২০ টাকা কেজিতে কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের। ব্রয়লার মুরগির দাম ১১০ টাকা কেজি থাকলেও এখন বেড়ে হয়েছে ১৩০ টাকা। তবে হাঁস এবং দেশি মুরগির দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি ১০ টাকা করে। হাঁস এখন ২৭০ টাকা এবং দেশি মুরগি ৩৬০ টাকা কেজিতে কিনতে পারছেন ক্রেতারা।
নগরীর সাহেববাজারে সবজি নিয়ে বসে ছিলেন বিক্রেতা আনোয়ার ইসলাম। তিনি বলেন, আজ আলু এবং শসার দাম বেশি। তাছাড়া বাকি সব সবজির দামই তুলনামুলক একটু কমেছে। আমি আজ ৪৪ টাকা কেজিতে আলু পাইকারি বাজার থেকে কিনেছি। অন্যরাও এই দামেই কিনছে এবং ৪৮ টাকা কেজিতে বিক্রি করছে।ক্রেতা বাবু ইসলাম বলেন, আমি সবজি এবং মাংস কিনলাম। মাংসের দাম একটু বেড়েছে। তবে আজ আলু ও শসার দাম একটু বেশি। বাকি সব কিছুর দাম একটু কমেছে। তবে অন্য বছরের তুলনায় এই সময়ে দাম অনেক বেশি।